সপ্তাহের সেরা

    আখ্যাত রচনা

    অনুবাদরমজানের ঐ রোযার শেষে

    রমজানের ঐ রোযার শেষে

    আজ ঈদ রাতে বার বার নিজের কাছে প্রশ্ন জাগছে আমি নিজে এই গানটির চেতনা কতটুকু ধারণ করি? ছুঁড়ে আসা পাথর দিয়ে প্রেমের মসজিদ তৈরি করা কি সহজ কথা? আপনাকে বিলিয়ে দেয়া?

    তবু বলি। বার বার বলি।
    মনের মাঝের সব দীনতা, মলিনতা নিয়েই বলি।
    আমাদের মাঝেই কেউ কেউ পারেন।
    তিনি তো আমাদেরই প্রিয়জন।

    Lo! At the long end of Ramadan fasting happy Eid has arrived
    O you, disburse all your belongings and self; carry out the vocation divine.

    All your rich and luxury are for the sake of God
    Give charity much enough to awake the Muslims hibernating.

    On this Eid you congregate for prayer in that very ground
    That is the slaughtering place for hero Muslim martyrs.

    Forget today whosoever is friend or foe, put all hands together
    Let your love cause the world to embrace in Islam.

    Those poverish people as if fasting all thru their lives
    Donate the surplus all to those poor, orphan and vulners.

    Fill your heart with the sacred fruits of belief in One
    For sure, the Hazrat will accept your calling.

    Those thru the life pelted stones to you
    Build with the stones a masjid of love.

    Lo! At the long end of Ramadan fasting happy Eid has arrived
    O you, disburse your all, carry out the vocation divine.

    তারেক মাহমুদ
    তারেক মাহমুদ
    জন্ম রাজশাহীতে। কর্মজীবনে একজন ব্যাঙ্কার, কর্মস্থল ‘ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড’।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here
    Captcha verification failed!
    CAPTCHA user score failed. Please contact us!

    মোহমত্ত জীবন

    মোহমত্ত জীবন আহা মোহের কী যে দশা! তুমি মত্ত হইলে তাহে হইবে জীবন সর্বনাশা। যেমন পতঙ্গ মরিছে জ্বলন্ত প্রদীপে পুড়িয়া, তাহার সৌন্দর্য দেখিয়া। হরিণ মরিছে কানে শুনিয়া ব্যাধের বংশীধ্বনিতে মজিয়া। কালো...

    হেরে যাইনি আমি

    হেরে তো যাইনি আমি হারিয়েও যাইনি পথে, অস্তিত্বে রয়ে গেছি স্বকীয়। পদচ্ছাপ ঠিক রয়েছে ঘরময় বিলীন হয়নি আজও। অনুভবের অনুবাদ তোলপাড় তব স্মৃতিতে ভ্রমণ অগণন সময়ের আলোড়ন...

    পরিবর্তন

    হৃদয় ছিল আমাজানের মত, সহস্রাধিক জাতের বৃক্ষ, লতা, গুল্মে ভরা, পশু, পাখি আর শ্বাপদের অভয়াচরণ। কামনার আগুনে জ্বলে গেছে সব, পড়ে আছে ছাই, কয়লা আর হাড়; হৃদয় এখন বিশাল...

    বিবরণ

    অদূরে পাহাড়; রঙের বাহার খেলিছে তাহার ’পর; নীলাভ সবুজ; মলিন সুরুজ; কুয়াশা বাঁধিছে ঘর। পাহাড়ের সারি গুনিতে না-পারি; গিয়েছে মিলিয়ে নভে; পাহাড়ের ছায়ে পাহাড় দাঁড়ায়ে; সবারই নজর...

    বহতা কষ্টনদী

    ২০২২সাল... এনেছিল কষ্টের বেনোজল ভাসায়ে নিয়েছে মোর মা'কে তারপর দিন-মাস করে করে, সময় ফুরালো পলে পলে। বেনামা শূণ্যতা বয়ে বয়ে... যা আজও অবিকল আছে । অনুভূতিরা রয়ে...

    তুমি ব্যঞ্জন

    একটা 'তুমি'র বিস্তৃতি যেনো আদিগন্ত ব্যাপী 'তুমি' শব্দটা তাই শত নামে স্বরূপি। কবির কলমও তুমিময়। গল্পে ও কাব্যগাথায় তেমনই প্রকাশ পায়। তবু বুঝতে পারি না একটা 'তুমি' সম্বোধন... ভরা কতোশত ব্যঞ্জন? আর...

    দুনিয়া-সার

    পথের ধারে বিশাল মাকাবুরা, সারি সারি কবর; চেনা-অচেনা কত মানুষ, কেউ তো রাখে না খবর বছরের পর বছর যায়, একাকী— ভাবে না মানুষ, আমার কতদিন বাকী! যারা মনে...

    কল্পিত সুখের মহড়া

    মানুষের কল্পিত সুখটাই বোধকরি বেশি সুন্দর তেল-নুন ছাড়াই ঘরকন্না এখানে... অনায়াসে রাত-দিন স্বপ্নসৌধ গড়ে, নির্বিঘ্নে, ইট-কাঠ-পাথরে সেজে সংসারী। ঘর-বারান্দায় নরম আলোকিত সুখের মহড়া মোমে-মখমলে-সন্ধ্যাদীপে জড়িয়ে...

    পরিবর্তন

    সরলতাকে ধিক্কার দিও না প্রকৃতির নির্মলতা, জলের স্বচ্ছতা সেখানে। কোনো চাতুরি ছিল না। খুব করে চাইলে, বলতেই পারতে ছুটে কি আসতে পারতাম না? নিঃস্ব ...

    সময়ের সুখ অসুখ

    সুখের এবং অসুখের দুদিন মাত্র সময় জীবনও তাই, আলোকোজ্জ্বল, মেঘময়। সময় যা করে তার তরে নিন্দা যে করে, তারে বল, সময় কি ছাড়ে মহাপুরুষেরে? তুমি কি দেখ নি,...

    মনোরম সাঁঝ

    জলে যে জীবন আছে তারাও কি জ্বলে প্রেমে পড়ে তাদেরও কি আছে নাকি সামাজিক বাধা, এক হতে তারাও কি ঘর ছাড়ে, বাধা আসে নানা ধর্ম...

    কিছু কথা থাকে

    জীবনে কিছু কথা থাকে লুকিয়ে রাখার জন্য কিছু কথা থাকে চিরকাল বয়ে বেড়ানোর জন্য কিছু কথা থাকে শুধু দুজনের চোখাচোখি হবার জন্য তেমনি কিছু...

    লেখক অমনিবাস

    বৃষ্টিবিলাস

    তুমি এলে দহন দিনের শেষে একাকি সন্ধ্যায় তুমি এলে বহু দিন পর এলে, সে কি গর্জন তোমার জানালার কাঁচে অবিরাম করে গেলে করাঘাত কেন ডাকছিলে? এখন কি চাইলেই যেতে...

    এই বিভাগে