প্রবেশকবিতা

    কবিতা

    রমজানের ঐ রোযার শেষে

    আজ ঈদ রাতে বার বার নিজের কাছে প্রশ্ন জাগছে আমি নিজে এই গানটির চেতনা কতটুকু ধারণ করি? ছুঁড়ে আসা পাথর দিয়ে প্রেমের মসজিদ তৈরি...

    কেউ কথা রাখেনি

    কেউ কথা রাখেনি, তেত্রিশ বছর কাটলো কেউ কথা রাখেনি ছেলেবেলায় এক বোষ্টুমি তার আগমনী গান হঠাৎ থামিয়ে বলেছিলো শুক্লা দ্বাদশীর দিন অন্তরাটুকু শুনিয়ে যাবে তারপর কত চন্দ্রভুক...

    তুমি এসো ফিরে

    তন্দ্রায় মুদে আসে আঁখি, সহসা শুনে পদধ্বনি চমকে উঠে থমকে থাকি, সে কি আসিবে এখনি? বুকের মাঝে সকাল সাঁঝে টিম টিম করে বাজে পরান কাড়া নয়ন তারা...

    স্বাধীনতা তুমি

    স্বাধীনতা তুমি রবিঠাকুরের অজর কবিতা, অবিনাশী গান। স্বাধীনতা তুমি কাজী নজরুল ঝাঁকড়া চুলের বাবরি দোলানো মহান পুরুষ, সৃষ্টিসুখের উল্লাসে কাঁপা- স্বাধীনতা তুমি শহীদ মিনারে অমর একুশে ফেব্রুয়ারির উজ্জ্বল সভা স্বাধীনতা তুমি পতাকা-শোভিত...

    নয়ন তোমারে পায় না দেখিতে

    নয়ন তোমারে পায় না দেখিতে রয়েছ নয়নে নয়নে, হৃদয় তোমারে পায় না জানিতে হৃদয়ে রয়েছ গোপনে।বাসনা বসে মন অবিরত, ধায় দশ দিশে পাগলের মতো। স্থির আঁখি তুমি ক্ষরণে শতত জাগিছ...

    ভাঙার গান

      ১  কারার ওই লৌহ-কবাটভেঙে ফেল কর রে লোপাট  রক্তজমাট  শিকল-পুজোর পাষাণবেদি!ওরে ও তরুণ ঈশান!বাজা তোর প্রলয়-বিষাণ!  ধ্বংসনিশান  উড়ুক প্রাচী-র প্রাচীর ভেদি।  ২  গাজনের বাজনা বাজাকে মালিক? কে সে রাজা?  কে দেয় সাজা  মুক্ত স্বাধীন সত্যকে রে?হা হা হা পায় যে...

    খিদে

    আদিম অনার্য আমি, আধুনিক এ পোশাকের নিচে একই খিদে একই লোভ, একই অনুভবে আছে আজও সেই পুরাতন কাম কাতরতা। প্রাচীন সে প্রণোদনা থেকে হয়তোবা,...

    বনসাই

    রাত গভীর হয়ে আসে জানালার পাশে ল্যাম্পপোস্টের আলোয় বৃক্ষের পত্রপুষ্প নির্জীব অশরীরি মূর্তির মতো ঘন জমাট বাঁধে। আকাশে শুক্লপক্ষের চাঁদ অদ্ভুত এক আলো আধাঁরির রহস্যময় খেলা অথৈ অলৌকিক...

    চ-বর্গীয়

    আরণ্যক,চ্-য়ে চয়ন, চ-য়ে চায়ী ... চ-য়ে চার ... এইটুকু না জেনেইকা-না-কা-নি কথার গুঞ্জনেআলাপনেফুলের পাপড়ির বাসরে নাচি নাচিমৌমাছিচয়ন করছে মধুর সংসার ... মৌচাকবিতান ... বিনিময়...

    বৃষ্টিবিলাস

    তুমি এলে দহন দিনের শেষে একাকি সন্ধ্যায় তুমি এলে বহু দিন পর এলে, সে কি গর্জন তোমার জানালার কাঁচে অবিরাম করে গেলে করাঘাত কেন ডাকছিলে? এখন কি চাইলেই যেতে...

    ছিল প্রয়োজন

    না-জানি যতনে বোনা কত যে লালিতকথামালা তব পায়ে হয়েছে দলিত।তুমি মোর শেষ চিঠি যখন পুড়েছ;বই খুলে ফুল দুটি বাহির করেছ,তখন পড়েছে জানি তার কথা...

    মান-অভিমান

    মুদিত নয়নে দেখে সেদিন নদীর ধারে মনে ক্ষীণ দ্বিধা রেখে অবশেষে শুধি তারে— “যে চোখে স্বপন খুঁজে পায় পথিকের মন, আছ কেন তাহা বুজে, করেছ কি কোনো...

    অসুখ

    এসব পুরনো রোগ। মাঝে মাঝে কচুরিপানা ভর্তি পাঁক হতেভুস করে ভেসে ওঠে আর ভুবন চিল ডানা মেলে আকাশে চক্রাকারে ভাসে। এসব পুরনো রোগএমনই হয়।জোনাকিরা ওড়ে...

    কিছু কথা থাকে

    জীবনে কিছু কথা থাকে লুকিয়ে রাখার জন্য কিছু কথা থাকে চিরকাল বয়ে বেড়ানোর জন্য কিছু কথা থাকে শুধু দুজনের চোখাচোখি হবার জন্য তেমনি কিছু...

    মনোরম সাঁঝ

    জলে যে জীবন আছে তারাও কি জ্বলে প্রেমে পড়ে তাদেরও কি আছে নাকি সামাজিক বাধা, এক হতে তারাও কি ঘর ছাড়ে, বাধা আসে নানা ধর্ম...

    সময়ের সুখ অসুখ

    সুখের এবং অসুখের দুদিন মাত্র সময় জীবনও তাই, আলোকোজ্জ্বল, মেঘময়। সময় যা করে তার তরে নিন্দা যে করে, তারে বল, সময় কি ছাড়ে মহাপুরুষেরে? তুমি কি দেখ নি,...